Thursday , 24 June 2021
সংবাদ শিরোনাম
সেনবাগে ছাত্রলীগ সভাপতিকে চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

সেনবাগে ছাত্রলীগ সভাপতিকে চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

May 29, 2021 তে 5:06 pm

সেনবাগ প্রতিনিধি
নোয়াখালীর সেনবাগে ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান ও তার সহপাটি আরিফকে এলোপাথাড়ী পিটিয়ে চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যাবার অভিযোগ ওঠেছে মোহাম্মদপুর ইউপির আওয়ামী লীগ নেতা ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল হুদা হোদনের কর্মীদের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি শুক্রবার রাতে ৮টার দিকে সে বীজবাগ ইউনিয়নের খলিল মিয়ারহাট বাজারে ঘটে। এসময় সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগ সভাপতির মোটরসাইকেল, মোবাইল ফোন, হাতঘড়ি ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

মোঃ হাবিবুর রহমান মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের দক্ষিন রাজারামপুর গ্রামের এমপি আবদুল রহমানের বাড়ির সৌদি প্রবাসী মোঃ ইয়াছিনের ছেলে ও ৩ ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে।

হাবিবুর রহমান জানায়, সে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও মোহাম্মদপুর সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী ফিরোজ আলম রিগানের পক্ষে ব্যানার ও পেষ্টুন লাগাতে দেখে অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী হুদার অনুসারীরা তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে সে পার্শ্ববর্তি ইউনিয়ন বীজবাগের খলিল মিয়ারহাট বাজারে সহপাটি আরিফকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে আল মদিনা হোটেলে নাস্তা করার জন্য যায়। সে ওই বাজারে পৌছ মোটরসাইকেল পার্কিং করার সময় অতর্কিতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর নুরুল হুদা হোদনের সমর্থকরা এমরান, শান্ত, দুলাল, টিপু, রতন ও ছরওয়ারের নেতৃত্ব ১০/১৫ জনের একদল সন্ত্রাসী অতর্কিতে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে এলোপাথাড়ী পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করে। এ সময় তার চিৎকারে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করার জন্য এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা কয়েক রাউন্ড গুলি ছুড়ে আতংঙ্ক সৃষ্টি করলে লোকজন চলে যায়। এ সময় ওই সন্ত্রাসীরা তাকে চোখ বেঁধে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আটকিয়ে রাখে।

খবর পেয়ে বীজবাগ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবাক জহিরুল ইসলাম সুজন তাকে পার্শ্ববর্তি ফেনীর দাগনভূঁইয়ার উপজেলার মৃর্ধারহাট এলাকা থেকে ও রাতে উদ্ধার করে সেনবাগ সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আরিফকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এঘটনায় দক্ষিন রাজারামপুর গ্রামের মো এয়াছিনের ছেলে আতিক হোসেন বাদী হয়ে ৬জন আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান।

এব্যাপারে যোগাযোগ করলে চেযারম্যান প্রার্থী নুরুল হুদা হোদন এধরণের কোন ঘটনার সঙ্গে তিনি বা তার কোন কর্মী সমর্থক জড়িত নয় বলে দাবী করে বলেন উপর্যুক্ত সন্ত্রাসীরা শনিবার গভীর রাতে তার বাড়িতে হামলা করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সেনবাগ থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ(ওসি) মোঃ আবদুল বাতেন মৃধা বলেন, বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্য দেখছেন। তার পরও অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top